সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০২:৩৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুমিল্লার চান্দিনায় বাতিজাকে ফাঁসানোর জন্য নিজ সন্তান সালমা আক্তার কে কুপিয়ে হত্যা করায় বাবা সহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ মোঃ আশিকুল রহমান রাসেল কুমিল্লার চান্দিনা উপনির্বাচন উপলক্ষে আওয়ামী লীগ দলীয় একক প্রার্থী হিসাবে মুনতাকিম আশরাফ টিটু মনোনয়ন পেপার সংগ্রহ টিকটক ভিডিও ও প্রেমে বাধা দেয়ায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা!! কুমিল্লার চান্দিনায় ৭ উপনির্বাচন উপলক্ষে শ্রীমন্তপুর উচ্চ বিদ্যালয় বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে কুমিল্লা-৭ আসনের উপ-নির্বাচন আগামী ৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে। আইসিইউ’তে অধ্যাপক আলী আশরাফ এমপি: রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী; পরিবারের পক্ষ থেকে দোয়া প্রার্থনা কুমিল্লার দাউদকান্দিতে ৮টি ড্রেজার মেশিন অপসারণ করলেন সার্কেল এএসপি জুয়েল রানা কুমিল্লার চান্দিনায় ৫ কেজি গাঁজা ও ৩৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ দুই মাদক কারবারি আটক করেছে চান্দিনা থানার পুলিশ কুমিল্লা চান্দিনা উপজেলা জোয়াগ ইউনিয়নের কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী ও চোরাকারবারি ইউনূসকে মাদক সহ গ্রেপ্তার
ব্রেকিং নিউজ :

টিকটক ভিডিও ও প্রেমে বাধা দেয়ায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা!!

টিকটক ভিডিও ও প্রেমে বাধা দেয়ায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা!!

নিজস্ব প্রতিবেদক;
টিকটক ভিডিও ও প্রেমে বাধা দেয়ায় বড় বোনের উপর অভিমান করে রাইসা আকতার নামে এক স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বগুড়ার ধনুটে।

রাইসা আকতার ধুনট উপজেলার পশ্চিম ভরনশাহী গ্রামের ছাবেদ আলীর মেয়ে। সে ধুনট পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় রাইসা টিকটক ও লাইকিতে আসক্ত হয়ে পড়ে। জনপ্রিয়তা বাড়াতে ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করে।

ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধুবালা জানান, ওই স্কুলছাত্রী লাইকি ও টিকটকে আসক্ত হয়ে পড়েছিল। একজনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। এসব নিয়ে বড়বোন মাঝে মাঝে বকঝকা করে, আবার পরিবার থেকে তাকে বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছিল। এসব কারণে সে আত্মহত্যা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পেলেই আসল ঘটনা জানা যাবে।

এ বিষয়ে আরো জানা গেছে রাইসা লেখাপড়া বাদ দিয়ে সব সময় হাতে মোবাইল ফোন নিয়ে থাকত। এছাড়া এলাকার এক ছেলের প্রেমে পড়ে। পরিবারের লোকজন টের পেয়ে তাকে শাসন করেন। তাকে বিয়ে দেওয়ার জন্য পাত্র খোঁজা হচ্ছিল। এসব নিয়ে বড়বোনের সঙ্গে তার ঝগড়া হয়। ক্ষোভ ও অভিমানে রাইসা বুধবার বিকালে বাড়ির শয়ন ঘরে ঢুকে দরজা লাগিয়ে দেয়।

রাতে বাড়ির লোকজন দরজা খুলে ঘরে ঢুকে রাইসাকে ঘরের আঁড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে থাকতে দেখেন। দ্রুত তাকে উদ্ধার করে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক জহুরুল ইসলাম মৃত ঘোষণা করেন। ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক জহুরুল ইসলাম জানান, রাইসাকে চিকিৎসার কোন সুযোগ পাওয়া যায়নি। স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে আসার আগেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Our Like Page

প্রযুক্তি সহায়তায় Freelancer Zone